Thursday, April 25, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গমুখ্যমন্ত্রীর আধার-অভয়ের পত্র বর্ধমানের অতিরিক্ত জেলা শাসক পৌঁছে দিলেন জামালপুরে

মুখ্যমন্ত্রীর আধার-অভয়ের পত্র বর্ধমানের অতিরিক্ত জেলা শাসক পৌঁছে দিলেন জামালপুরে

নিজস্ব প্রতিনিধি,বর্ধমানঃ সপ্তাহ খানেক আগে এক আধজনের নয় প্রায় ৬০ জনের কাছে আধার নিক্রিয় করার চিঠি পৌঁছায় বাড়িতে। এতেই কপালে ভাঁজ পড়ে যায় স্থানীয় বাসিন্দাদের। আধার কার্ড নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে জানিয়ে ডাকযোগে এমন চিঠি পান জামালপুর ব্লকের বহু বাসিন্দা। জামালপুর ব্লকের জৌগ্রাম,আবুজহাটি এলাকায় প্রায় ৬০ জনের কাছে ডাকযোগে এই চিঠি পৌঁছায়। আবুজহাটি ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের জুতিহাটি গ্রামের প্রায় ৫০ জন এমন চিঠি পান এবং জৌগ্রামের অনেকের কাছেও এই চিঠি আসে।  স্থানীয় বাসিন্দারা বুঝতে পারেন নি  কেন আধার কার্ড ডিঅ্যাক্টিভেট হয়েছে। এমনকি তাঁদের রেশন,ব্যাঙ্কের লেনদেন সহ আধার নির্ভর কাজ বন্ধ হয়ে যায়। আধার নিয়ে ব্লক প্রশাসনও কার্যত অন্ধকারে ছিল। এই ঘটনায় যেমন বাসিন্দারা শঙ্কিত হয়ে পড়েন। তেমনি পাশাপাশি রাজ্যজুড়ে ব্যাপক শোরগোল পড়ে যায়। তৃণমূল বিজেপি নেতৃত্ব একে অপরের ঘাড়ে দায় চাপায় আধার নিক্রিয় নিয়ে। শুরু হয় রাজনৈতিক চাপানউতোর। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধায় এই নিয়ে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন। বুধবার পূর্ব বর্ধমানের অতিরিক্ত জেলা শাসক (সাধারণ) অমিয় কুমার দাস জৌগ্রাম এবং আবুজহাটি ১ নম্বর পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দাদের  কাছে যান মুখ্যমন্ত্রীর একটি শুভেচ্ছা বার্তা নিয়ে। সেই শুভেচ্ছা বার্তা তাদের হাতে তুলে দেন অতিরিক্ত জেলা শাসক। শুভেচ্ছা বার্তায়  বিশ্ব বাংলার লোগো দেওয়া আছে। যাদের আধার কার্ড নিক্রিয় করার চিঠি এসেছে,তাদেরকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আশ্বস্ত করা হয়। অতিরিক্ত জেলা শাসক (সাধারণ) অমিয় কুমার দাস বলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আপনাদের পাশে আছেন। তিনি জানিয়েছেন, রাজ্যের যে সকল মানুষ যাঁরা এই কার্ড বন্ধের কেন্দ্রীয় সরকারী বার্তা পেয়েছেন-তাঁদের এই নিয়ে কোনোরকম ভয় বা চিন্তা করার কোনো কারণ নেই। আমাদের সরকার সবসময় রাজ্যের মানুষের পাশে আছে। সরকারী যেসব সুযোগসুবিধা তাঁরা পান,এই কারণে তা কখনো বন্ধ করতে দেওয়া হবে না। আমরা ইতিমধ্যেই ‘রাজ্যের আধার কার্ড সমস্যা পোর্টাল’ চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগামীকাল থেকে সেটা চালু হয়ে যাবে। যাঁরা যাঁরা এই চিঠি পেয়েছেন, তাঁরা তাঁদের এই সংক্রান্ত তথ্য এই পোর্টালে জানাতে পারবেন। এছাড়া, মানুষের অভাব-অভিযোগের নিষ্পত্তি করার জন্য আমরা যে ‘সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী’ টেলিপরিষেবা চালু করেছি সেই ৯১৩৭০৯১৩৭০ নম্বরে সরাসরি ফোন করেও তাঁরা তাদের অভিযোগ জানাতে পারবেন। স্বাভাবিকভাবেই খুশী এলাকার বাসিন্দারা যাদের আধার কার্ড নিষ্ক্রিয় হয়েছে। খানিকটা হলেও যেন ঘাম দিয়ে জ্বর ছাড়ার মত। জুতি হাটি গ্রামের বাসিন্দা বিপুল বিশ্বাস,সজল দাসরা বলেন,জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের আশ্বস্ত করা হয়েছে। জেলা শাসক,বিডিও ও পঞ্চায়েত প্রধান ছিলেন। তারা আমাদের বাড়ি বাড়ি এসে বললেন দুশ্চিন্তা বা ভয়ের কোন কারণ নেই। তাদের কোন সরকারি পরিষেবা বন্ধ হবে না। আবার আধার কার্ড ঠিক হয়ে যাবে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments