Thursday, April 25, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গভোটের মুখে দলবদল, বিজেপি,সিপিএম, কংগ্রেস থেকে তৃণমূলে যোগদান

ভোটের মুখে দলবদল, বিজেপি,সিপিএম, কংগ্রেস থেকে তৃণমূলে যোগদান

নিজস্ব প্রতিনিধি বর্ধমান: সোমবার মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও জেলা সভাপতি রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে বর্ধমান দুর্গাপুর কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী কীর্তি আজাদের হাত থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের পতাকা হাতে তুলে নেন অন্যান্য দল থেকে আসা নেতা কর্মীরা। যারা অন্যান্য দল থেকে তৃণমূলে যোগ দিলেন তারা হলেন, গলসীর কুরকুবা গ্রাম পঞ্চায়েতের বিজেপি নেতা দীপক দাস, গলসীর কুরকুবা গ্রাম পঞ্চায়েতের কংগ্রেস সদস্যা তনুজা খাতুন, গলসীর আদ্রা পঞ্চায়েতের কংগ্রেস সদস্যা মর্জিনা বেগম ও সিপিএম সদস্য প্রকাশ ভট্টাচার্য। এদিন সন্ধ্যায় বর্ধমানের টাউনহলে একটি কর্মী বৈঠকের পর তাদের তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করানো হয়। তৃণমূল নেতৃত্বের দাবী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উন্নয়ন দেখে এই সকল নেতানেত্রীরা তৃণমূল কংগ্রেসে আসার জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন। দলীয় সিদ্ধান্তে তাদের আজ তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করানো হয়েছে। অন্যান্য দল থেকে যারা আজ তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করলেন তাদেরও বক্তব্য একই। এদের সকলের একই দাবী, মুখ্যমন্ত্রীর উন্নয়ন দেখে তারাও এই উন্নয়নে শামিল হয়েছেন।
যদিও এই যোগদান নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসকে কটাক্ষ করেছে বিরোধীরা। বিজেপি নেতা মৃত্যুঞ্জয় চন্দ্র বলেন, যাকে বিজেপি নেতা বলে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করানো হল তিনি আগে থেকেই তৃণমূল কংগ্রেসে ছিলেন। তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠী কোন্দলের ফলে তার স্ত্রী টিকিট পায়নি। তিনি কয়েকদিনের জন্য আমাদের দলে এসেছিলেন। তাকে কোন পদ দেওয়া হয়নি। এতে তৃণমূল কংগ্রেসেরই ভাবমূর্তি নষ্ট হবে। সিপিএমের জেলা সম্পাদক সৈয়দ মহম্মদ হোসেন বলেন, বিষয়টি আমি জানিনা। তবে জেলা জুড়ে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে চাপ দেওয়া হচ্ছে, ভয় দেখানো হচ্ছে। এটা প্রশাসনের দেখা উচিত।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments