Thursday, April 25, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গখন্ডঘোষে প্রচারে এসে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রাক্তন স্বামীকে তীব্র আক্রমণ সুজাতার

খন্ডঘোষে প্রচারে এসে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রাক্তন স্বামীকে তীব্র আক্রমণ সুজাতার

নিজস্ব প্রতিনিধি,বর্ধমানঃ বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস সুজাতা মণ্ডলকে প্রার্থী ঘোষণা করার পর থেকেই ভোট প্রচারে ঝড় তুলছেন তিনি। রবিবাসরীয় ভোট প্রচারে পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষে আসান সুজাতা মণ্ডল। প্রথমে তিনি খণ্ডঘোষের বুড়ো শিবতলায় পুজো দেন এবং তারপর খণ্ডঘোষের বিভিন্ন এলাকায় পদযাত্রা করেন। মানুষের সঙ্গে কথা বলেন এবং তৃণমূল কংগ্রেসকে বিপুল ভোটে জয়ী করার আহ্বান জানান। খণ্ডঘোষ বিধায়ক কার্যালয়ের পাশেই নির্বাচনী সভা করা হয়। সুজাতা জানান,খণ্ডঘোষে প্রচারে এসে মানুষের অভূতপূর্ব সাড়া পাচ্ছি। তিনি নাম না করে বিষ্ণপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপির প্রার্থীর উদ্দেশ্য বলেন,সাংসদ হিসেবে কোনো কাজ তিনি এই এলাকায় করেন নি। তিনি বলেন,সৌমিত্র খাঁ-কে নিয়ে কিছু বলতে রুচিতে বাঁধে। দিদিরা লক্ষ্মীর ভাণ্ডার ঢুকে গেছে তো? এবার থেকে বেড়ে যাবে,আগামী মাস থেকে। জানো তো এবার বেড়ে গেলো? রবিবাসরীয় প্রচারের বেড়িয়ে এভাবেই ভোটারদের সঙ্গে কথা বলতে দেখা গেলো বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা মণ্ডলকে। বার্ধক্য ভাতা পাচ্ছেন তো? একই ঘরে এতগুলো মানুষ যখন উপকার পায় তখন মাথাটা বারবার নেত্রীর চরণে নত হয়ে যায়। আমি মমতা’দির সৈনিক,আমি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৈনিক,আমি তৃণমূল কংগ্রেসের সৈনিক। গ্রাম বাংলা ও আমার এই বিষ্ণুপুর লোকসভার এই খণ্ডঘোষ বিধানসভার এমন একটি ঘর খুঁজে পাওয়া যায় নি বা যাবে না যেখানে মমতা’দির উন্নয়নের প্রকল্প পৌঁছায়নি। একই ঘরে একাধিক মানুষ এবং মহিলারা বিশেষত সম্মানিত। বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ কে সুজাতা বলেন,এতদিন তিনি রাস্তাঘাটে নামেননি শুধু বিলাসিতা করেছেন তাই এখন অনেক কিছুই করতে হচ্ছে। এইসব ভেকধারি করে কোন লাভ হবে না, ভেকধারি নাগিনদের মানুষ বুঝে গেছে। যতই উনি নাটক করে যান ভোট উনি পাবেন না। খণ্ডঘোষ বিধানসভা থেকে সাংসদ হয়ে তিনি কোন উন্নয়ন করেননি,কোন কাজ করেননি। উনি নির্লজ্জ বলেই মানুষের কাছে ভোট চাইতে আসছেন। বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁকে আক্রমণ শানিয়ে তার প্রাক্তন স্ত্রী সুজাতা মণ্ডল বলেন,২০১৯ সালে কি উনি সবথেকে বড় বালি মাফিয়া ছিলেন, উনার কি কি কেস ছিল?  উনি অন্যের দিকে আঙ্গুল তুলছেন কি করে,ওনার অত অঢেল বিপুল সম্পত্তি হলো কি করে? উনাকে চালুনি হয়ে ছুঁচকে বিচার করতে বারণ করুন, সেটা কিন্তু ভয়াবহ হবে। সবাই চোর আর উনি সাধু? সময় জবাব দেবে। ওনাকে নিয়ে কথা বললে নিজেকে রুচিহীন মনে হয় তাই কিছু বলতে চাই না। এদিনের এই কর্মসূচিতে ছিলেন খণ্ডঘোষ বিধানসভার বিধায়ক নবীনচন্দ্র বাগ,ছিলেন খণ্ডঘোষ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অপার্থিব ইসলাম,ব্লকের যুব সভাপতি শুভেন্দু পাল সহ অন্যান্যরা।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments