Monday, June 24, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গনেতৃত্বের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে তৃণমূলে যোগ দিলেন বিজেপি নেতা সন্তোষ রায়

নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে তৃণমূলে যোগ দিলেন বিজেপি নেতা সন্তোষ রায়

নিজস্ব সংবাদদাতা,বর্ধমান,২০ এপ্রিলঃ  বিজেপির প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর থেকে লাগাতার সমাজ মাধ্যমে বিশেষ করে বর্ধমান পূর্ব লোকসভা আসনের প্রার্থী অসীম সরকারকে পরিবর্তন করার আবেদন নিবেদন করেও কোনো ফল না হওয়ায় বিজেপির বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন রাজ্য বিজেপির কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য সন্তোষ রায়। শনিবার বর্ধমানের কালীবাজারে পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল কংগ্রেস কার্যালয়ে জেলা সভাপতি রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায় রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথের উপস্থিতিতে সন্তোষ রায়ের হাতে তৃণমূলের দলীয় পতাকা তুলে দেন। সন্তোষ রায় ২০১৪ সালে বর্ধমান পূর্ব লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করেছেন। সন্তোষবাবু জানিয়েছেন, বাংলা ও বাঙালী বিরোধী বিজেপি নেতাদের জমিদারী মনোভাবে বীতশ্রদ্ধ হয়ে এবং বাংলা ও  বাঙালীদের রক্ষায় মমতা ব্যানার্জী ও অভিষেক ব্যানার্জীর যে ধারাবাহিক লড়াই তাকে কুর্ণিশ জানিয়ে তৃণমূলে যোগদান করলেন তিনি। আগামীদিনে বাংলার স্বার্থ রক্ষার কাজ করবেন মমতা ব্যানার্জী ও অভিষেক ব্যানার্জীর হাত ধরে। তিনি জানিয়েছেন, গত প্রায় ১ মাস ধরেই তৃণমূলের বিভিন্ন নেতার সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ চলছিল। অবশেষে মেমারী ১ নং ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি নিত্যানন্দ ব্যানার্জ্জীর হাত ধরে এদিন বর্ধমান জেলা তৃণমূল অফিসে আসেন সন্তোষবাবু। উল্লেখ্য, বিজেপির প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর থেকে তিনি বহিরাগত প্রার্থী অসীম সরকারকে প্যারাসুট লিডার বলে উল্লেখ করে রীতিমত চ্যালেঞ্জ ছোঁড়েন ক্ষমতা থাকলে অসীমবাবু বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে লোকসভায় লড়ুন। এমনকি সোস্যাল মিডিয়ায় তিনি বর্ধমান পূর্ব লোকসভা আসনে বিক্ষুব্ধ প্রার্থী দেবার কথাও ঘোষণা করেন। এদিন সন্তোষবাবু জানিয়েছেন, বর্তমান বিজেপি আদর্শচ্যুত। এখানে তাঁদের মতো  আদি বিজেপি নেতাদের কোনো মূল্য নেই। আর তাই তিনি বিজেপি ত্যাগ করে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। সন্তোষ রায় জানিয়েছেন, শুধু তিনি নন, তাঁর সঙ্গে প্রায় ২ হাজার বিজেপি সমর্থক যোগ দিচ্ছেন তৃণমূলে। একইসঙ্গে তিনি বর্ধমান দুর্গাপুর আসনের বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষ সম্পর্কে বলেন, ওনাকে এবং লকেট চট্টোপাধ্যায়কে হারানোর জন্যই জায়গা পরিবর্তন করে প্রার্থী করা হয়েছে। বস্তুত,লোকসভা নির্বাচনের মুখে সন্তোষ রায় ও তাঁর অনুগামীদের এই দলত্যাগ নিয়ে রীতিমত আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। এদিন বিজেপি ত্যাগী এই নেতার হাতে তৃণমূলের দলীয় পতাকা তুলে দেবার অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে হাজির ছিলেন  মেমারীর প্রাক্তন বিধায়ক নার্গিস বেগম, উজ্জ্বল প্রামাণিক, জেলা পরিষদের মেণ্টর মহম্মদ ইসমাইল, জেলা সাধারণ সম্পাদক বাগবুল ইসলাম, তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র প্রসেনজিত দাস প্রমুখ। অন্যদিকে, এব্যাপারে বিজেপি প্রার্থী অসীম সরকার জানিয়েছেন, কাকে খোঁজে বিষ্ঠা কোথায়,কোকিল খোঁজে বৃষ্টি,যার যাতে হয় ইষ্ট পূজা সেইদিকে তাঁর দৃষ্টি। সন্তোষ বাবুর বিষ্ঠায় রুচি,তাই পদ্মে অসন্তোষ। তাই পদ্ম ফেলে চোরের দলে গিয়েছেন সন্তোষ। বহিরাগত বিষয়টা তো নয়। যার যেটা ভালো লাগে। উনি এখানে থেকে চুরি করতে পারছিলেন না। এবার চুরি করার দরজাটা ওনার খুলবে। আর তাড়াতাড়ি জেলে যাবেন। সেই ব্যবস্থাটা হবে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments