Monday, June 24, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গমুর্শিদাবাদে রামনবমীর মিছিলে হামলার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকেই দায়ী করলেন দিলীপ ঘোষ

মুর্শিদাবাদে রামনবমীর মিছিলে হামলার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকেই দায়ী করলেন দিলীপ ঘোষ

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান: রোজকার বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষ বর্ধমানের অফিসার্স কলোনির মাঠে প্রাত:ভ্রমণ করেন। তারপর বীরহাটা বাজারের সামনে চা চক্র অনুষ্ঠানে অংশ। সেখানে তিনি বলেন, মুর্শিদাবাদে রামনবমীর শোভাযাত্রায় ইটপাথর বোমা মারার চেষ্টা হয়েছিল। আমি বলেছিলাম যারা এইধরনের বদমাইশি করত তারা আর করবে না এটা। কিন্তু কয়েকদিন ধরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাঙ্গা দাঙ্গা বলে, বিশেষ এক সম্প্রদায়কে উস্কাবার চেষ্টা করেছে।অনেকবার করিয়েছেন। তারা তার প্ররোচনায় পা দিয়ে বদনাম হয়েছে। আমি বলছি মুসলমান সমাজের দাঙ্গা করার দরকার নেই। তারা বুঝতে পেরেছেন ভারতবর্ষে মোদীর রাজত্বে মিলেমিশে থাকতে হবে,উন্নয়ন করতে হবে, সুখে থাকতে হবে।তারাও উন্নয়নের সব সুবিধা পেয়েছেন। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনীতি হল সাম্প্রদায়িক ভাগাভাগি করে ইলেকশন জেতা।তার কথায় যখন মুসলিমরা রাস্তায় নেমে বিরোধিতা করেন নি।তখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিছু ভাড়াটিয়া লোকদের নিয়ে এধরণের উৎপাত করেছেন। ধর্মীয় টেনশন করার চেষ্টা করেছেন পশ্চিমবঙ্গে। কারণ এবার মুসলমানরা টিএমসিকে ভোট দেবে না। তারা বিরোধিতা করছে। তারা সব থেকে বেশী বিশ্বাসঘাতকতার শিকার হয়েছে। ৯৫ পারসেন্ট মুসলিম জেলে বন্দী। তাদের ক্রিমিনাল কেস দিয়েছে। যাতে তারা ওদের হয়ে কাজ করে।কিন্তু ওরা বুঝতে পেরেছে তাদের সঙ্গে ধোঁকাবাজি করা হচ্ছে। তারা টিএমসিকে ভোট দেবে না।তাদের ভয় দেখানো হচ্ছে, উসকানো হচ্ছে। আমি ধন্যবাদ জানাবো মুসলিম সমাজকে। তারা রামনবমীতে অংশ গ্রহণ করেছেন, সহযোগিতা করেছেন। সম্প্রীতির পরিবেশ তৈরি করেছে। টিএমসি ভাড়াটিয়া গুণ্ডাদের নিয়ে এইধরনের উৎপাত করে রামনবমীর মিছিলে বোমা, পাথর মেরেছে। কালনায় অভিষেক ব্যানার্জীর কর্মী বৈঠক করতে আসা নিয়ে দিলীপ ঘোষ কটাক্ষ করে বলেন, করে নিন।কর্মী থাকলে তো করবেন। তৃণমূল কংগ্রেসের ইস্তাহারে সিএএ ও এনআরসি রোধ করার বিষয় নিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, ওরা জানে সারা জীবন থাকলেও হবে না।কারণ দিল্লিতে সরকার গঠন করতে হবে।দিল্লীতে সরকার গঠন করতে গেলে ২৭২সিট চাই। সমস্ত বিরোধী মিলে তার আধাও পাবে না।তাই তারা যা ইচ্ছে তাই বলে।তারা আগেও বিরোধীতা করেছে। কিছুই করতে পারবে না। কেন্দ্রীয় সরকারের যত প্রকল্প আছে সবের বিরোধিতা করেছে এরা। ৩৭০ ধারা, তিন তালাক সবের বিরোধিতা করেছে। কিছুই করতে পারে নি।দর্শকের ভূমিকায় ছিলেন আগামী দিনেও থাকবে। রেশন প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, উনি(মমতা) বলেছিলেন সারা জীবন রেশন দেবেন। এক কেজিও দিতে পারেন নি।উনি মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেন। অন্যদিকে বৃহস্পতিবার ছিল দিলীপ ঘোষের জন্মদিন। তাই ৭ নম্বর মণ্ডল সভাপতি সোমনাথ দাস দিলীপ ঘোষকে জন্মদিনের উপহার হিসেবে একটি পেন দেন। সেখানেও তিনি রাফ এ্যাণ্ড ট্যাফ।তিনি বলেন,আমার জন্মদিনে ভুল করে একজন পেন উপহার দিয়েছেন। আমার পাশে ইঞ্জিনিয়ার আমার জেলা সভাপতি আছে, ওনার পেন লাগে। আমার হাতে লাঠি সবার ভাল লাগে। বৃহস্পতিবার সকালে প্রাতভ্রমণ সেরে বর্ধমানের বীরহাটা এলাকায় চায়েপে চর্চায় যোগ দেন বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষ। সেখানে বিজেপির মহিলা কর্মীরা দিলীপ ঘোষকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments