Friday, May 24, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গবাইক চুরি চক্রের হদিস,উদ্ধার ৬টি বাইক,গ্রেফতার দুই

বাইক চুরি চক্রের হদিস,উদ্ধার ৬টি বাইক,গ্রেফতার দুই

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়াঃ মোবাইলের পর আবার চুরির ঘটনায় বড়সড় সাফল্য পেলো জেলা পুলিশ। বাঁকুড়া জেলা পুলিশ তদন্তে উদ্ধার হল ছয়টি মোটর বাইক, গ্রেফতার দুই। গত ৩-৪ মাসে বাঁকুড়া সদর থানা ও ওন্দা থানায় মোট সাতটি মোটর বাইক চুরির অভিযোগ জমা পড়ে। তৎপর হয়ে তদন্ত নামে জেলা পুলিশ। স্থানীয় মানুষের সঙ্গে কথা বলে সিসিটিভি সূত্র ধরে গত বছরের ২৫ ডিসেম্বর গ্রেফতার করা হয় ওন্দা থানার রতনপুরের বাসিন্দা শ্রীকান্ত মিশ্রকে। এরপর চলে দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদ। জিজ্ঞাসা করে ওন্দা থানার পুনিশোলের বাসিন্দা ভাংড়ি মালিক শেখ কালিমুদ্দিন এর ঠিকানা পায় পুলিশ। গতকাল সেই ভাংড়ি থেকেই উদ্ধার করা হয় বেশ কয়েকটি বাইক। গ্রেফতার করা হয় ভাংড়ি মালিককেও।পুলিশ সূত্রে খবর, রতনপুরের বাসিন্দা শ্রীকান্ত আচার্য বাঁকুড়ায় এসে বাঁকুড়ার যোগেসপল্লী, শ্রীপল্লী, কব্বরডাঙ্গা সহ বিভিন্ন এলাকায় বাইকের উপর নজরদারি চালাত। যখনই মোটর বাইক রেখে বাইকের মালিক কোথাও অন্যত্র চলে যেত। তখনই বাইকের লক ভেঙ্গে বাইক নিয়ে সে চলে আসত ওন্দা থানার পুনিশোলে শেখ কালিমদ্দিনের ভাংড়িতে। এবং সেখানেই বাইক কাটিং করে বিভিন্ন জায়গায় পাচার করার উদ্দেশ্যে জমা করা হয়েছিল।কিন্তু পাচারের আগেই মোটর বাইকগুলি পুলিশের হাতে পড়ে যায়। ভাংড়ি মালিক শেখ কালিমুদ্দিন গ্রেফতার করে, উদ্ধার করা হয় ছটি বাইক। পুলিশের দাবি এই বাইক চুরি চক্রের সঙ্গে আরও অন্য কারো যোগ থাকতে পারে সেই কারণেই তাদেরকে পুলিশ হেপাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ প্রয়োজন। আজ ধৃত দুজনকে বাঁকুড়া জেলা জর্জ আদালতে পেশ করবে পুলিশ। চুরি যাওয়া বাইক ফিরে পেয়ে খুশি বাইকের মালিক।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments