Saturday, May 18, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গদুর্গাপুজোর আগে উপহার,পানাগড়ে বাঘ,মিথিলা ও বালিয়া এক্সপ্রেসের স্টপেজের ব্যবস্থা করলেন সাংসদ আলুওয়ালিয়া

দুর্গাপুজোর আগে উপহার,পানাগড়ে বাঘ,মিথিলা ও বালিয়া এক্সপ্রেসের স্টপেজের ব্যবস্থা করলেন সাংসদ আলুওয়ালিয়া

জয় লাহা,দুর্গাপুর,১৬ অক্টোবরঃ  দুর্গাপুজোর আগে উপহার পেলেন পানাগড়বাসী। আসানসোল-বর্ধমান শাখার পানাগড়ে আরও তিনটি এক্সপ্রেস ট্রেনের স্টপেজ করল সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া। যাত্রীদের সুবিধার্থে পুর্ব রেল পানাগড়ে  ১৩১০৫/১৩১০৬ হাওড়া-বালিয়া এক্সপ্রেস, ১৩০১৯ হাওড়া-কাঠগুদাম বাঘ এক্সপ্রেস, ১৩০২২ রক্সোল-হাওড়া মিথিলা এক্সপ্রেস পানাগড়ে স্টপেজ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রেল বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, আগামী ১৮ অক্টোবর পানাগড়ে আনুষ্ঠানিক সূচনা করবেন সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া। প্রসঙ্গত, গত সেপ্টেম্বর মাসে কলকাতা – গোরখপুর পূর্বাঞ্চল এক্সপ্রেস পানাগড়ে স্টপেজের সূচনা করেন সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওহালিয়া। তার আগে তিনি একাধিক ট্রেনের স্টপেজের ব্যাবস্থা করেন বর্ধমান, পানাগড়, মানকর স্টেশনে। গত মে মাসে হাওড়া ভোপাল এক্সপ্রেস বর্ধমান স্টেশনে স্টপেজ দেওয়া শুরু করে। সিউড়ি-হাওড়া হুল এক্সপ্রেস মানকর স্টেশনে স্টপেজ দেওয়া শুরু করে। হাওড়া- প্রয়াগরাজ বিভুতি এক্সপ্রেস ও শিয়ালদহ- আসানসোল এক্সপ্রেস পানাগড় স্টেশনে স্টপেজ শুরু হয়। তার আগে ২০২১ সালে ফেব্রুয়ারী মাসে মানকরে স্টেশনে অগ্নিবিনা, ময়ুরাক্ষী ট্রেন স্টেপজ দেওয়া শুরু করে। একইসঙ্গে আসানসোল ডিভিশনের পারাজ স্টেশনের প্ল্যাটফর্মের আধুনিকিকরনের নব নির্বিত প্ল্যাটফর্মের উদ্বোধন করেন বর্ধমান-দুর্গাপুরের সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া। মানকর স্টেশনে কম্পিউটারাইজ টিকিট সংরক্ষণ ও আপার ক্লাস ওয়েটিং রুমের উদ্বোধন করেন তিনি। এছাড়াও ময়ুরাক্ষী ফাস্ট প্যাসেন্জার, মোকামা প্যাসেন্জার দাঁড়ানোর ব্যাবস্থা করা হয়। সম্প্রতি পাটনা – হাওড়া বন্দেভারতের দূর্গাপুরে স্টপেজের ব্যাবস্থা করেন। তারপরও এলাকাবাসীর দাবী মেনে আরও তিনটি এক্সপ্রেস ট্রেনের পানাগড়ে স্টপেজের ব্যাবস্থা করেছেন। রেল বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, ১৩১০৫/১৩১০৬ হাওড়া-বালিয়া এক্সপ্রেস, ১৩০১৯ হাওড়া-কাঠগুদাম বাঘ এক্সপ্রেস, ১৩০২২ রক্সোল-হাওড়া মিথিলা এক্সপ্রেস পানাগড়ে স্টপেজ দেবে। আগামী ১৮ অক্টোবর আনুষ্ঠানিক সূচনা হবে। স্বাভাবিকভাবে আবারও একগুচ্ছ এক্সপ্রেস ট্রেনের স্টপেজে খুশী পানাগড় সহ আশপাশের গ্রামবাসীরা। বর্ধমান-দুর্গাপুরের সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া জানান,” ওই এলাকার মানুষ দাবী জানিয়েছিল। সাধারন মানুষের সুবিধার্থে, রেলমন্ত্রক থেকে ট্রেনগুলি স্টপেজের ব্যাবস্থা করা হয়েছে। তাতে প্রচুর মানুষ উপকৃত হবে।”

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments