Thursday, May 23, 2024
Google search engine
HomeUncategorizedনাবালিকাকে ধর্ষণে বাবা ধৃত বর্ধমানে, চাঞ্চল্য

নাবালিকাকে ধর্ষণে বাবা ধৃত বর্ধমানে, চাঞ্চল্য

সংবাদদাতা, বর্ধমান: ১২ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে তার বাবাকে গ্রেপ্তার করেছে বর্ধমান মহিলা থানার পুলিস। বর্ধমান থানার সরাইটিকর এলাকায় তার বাড়ি। শনিবার ভোররাতে মুর্শিদাবাদের লালগোলা থানার জাগরপাড়া থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতকে এদিনই বর্ধমান সিজেএম আদালতে পেশ করা হয়। বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়ে ১৭ নভেম্বর ধৃতকে বর্ধমানের পকসো আদালতে পেশের নির্দেশ দেন ভারপ্রাপ্ত সিজেএম। ধৃতের মেডিক্যাল পরীক্ষা করানোর জন্য এদিন আদালতে আবেদন জানান তদন্তকারী অফিসার। বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজের ফরেন্সিক স্টেট মেডিসিনের বিভাগীয় প্রধানকে এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। নাবালিকার মেডিক্যাল পরীক্ষা আগেই করিয়েছে পুলিস। পুলিস জানিয়েছে, গত ১৬ আগস্ট ১২ বছরের নাবালিকা অসুস্থ হয়ে পড়ে। তার গোপনাঙ্গ থেকে রক্ত বের হচ্ছিল। নাবালিকার মা তাকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। বাড়ি ফেরার পর নাবালিকার দিদি তার মাকে ঘটনার কথা বলে। আগের দিন রাতে তার বোনকে বাবা ধর্ষণ করেছে বলে মাকে জানায় নাবালিকার দিদি। তার আগেই অবশ্য বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত। নাবালিকার মা এনিয়ে মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পেয়ে ধর্ষণ ও পকসো অ্যাক্টে মামলা রুজু করেছে থানা। অন্য একটি ঘটনায় পাঁচ বছরের শিশুকন্যার উপর যৌন নির্যাতন চালানোর অভিযোগে তারই এক আত্মীয়কে গ্রেপ্তার করেছে মহিলা থানার পুলিস। বর্ধমান থানার রায়নগরে ধৃতের বাড়ি। শনিবার সকালে বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিস জানিয়েছে, কালনা গেট এলাকায় ওই শিশুকন্যার বাড়ি। বৃহস্পতিবার জেঠিমার সঙ্গে তাঁর বাপেরবাড়িতে যায় ওই শিশুকন্যা। সেখানে আদর করার নাম করে শিশুকন্যাকে একটি ঘরে নিয়ে যায় অভিযুক্ত। ঘরে নিয়ে গিয়ে শিশুকন্যার উপর সে যৌন নির্যাতন চালায় বলে অভিযোগ। বাড়ি ফিরে শিশুকন্যা তার মাকে বিষয়টি জানায়। শনিবার সকালে ওই শিশুকন্যার মা মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে শিশুকন্যার মেডিক্যাল পরীক্ষা করিয়েছে পুলিস। ধৃতকে এদিনই বর্ধমান সিজেএম আদালতে পেশ করা হয়। বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়ে ১৭ নভেম্বর ধৃতকে পকসো আদালতে পেশের নির্দেশ দেন ভারপ্রাপ্ত সিজেএম

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments