Friday, June 14, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গবন্দেভারতের স্টপেজ এবার পানাগড় এবং দুর্গাপুরেও

বন্দেভারতের স্টপেজ এবার পানাগড় এবং দুর্গাপুরেও

নিজস্ব প্রতিনিধি,দুর্গাপুরঃ  ভারতীয় রেল অবশেষে পাটনা-হাওড়া বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ট্রেন চালু করতে চলেছে। আর ওই ট্রেন থামবে। রবিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পাটনা-হাওড়া সহ ৯টি বন্দেভারত ট্রেনের পতাকা উন্মোচন করবেন। স্বাভাবিকভাবেই খুশীর হওয়া দুর্গাপুর-পানাগড় শিল্পাঞ্চলে। প্রসঙ্গত, হাওড়া- আসানসোল রুটের অন্যতম রেল ষ্টেশন দুর্গাপুর। দৈনিক প্রায় ১১ হাজার যাত্রী যাওয়া আসা করে ওই ষ্টেশনে। শহর দুর্গাপুর ছাড়াও পার্শ্ববর্তী বাঁকুড়া,বীরভুম জেলার মানুষও এই ষ্টেশন থেকে রেল পরিষেবা পায়। দুর্গাপুরে একাধিক শিল্প কারখানা,কোলিয়ারি,গবেষনাগার,কারিগরি প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও আধুনিকমানের হাসপাতাল রয়েছে। স্বাভাবিকভাবে দুর্গাপুর রেল স্টেশনের গুরুত্ব রয়েছে। অতীতে প্রধানমন্ত্রীর স্বচ্ছভারত অভিযানে সারা দেশের সবক’টি ষ্টেশনে সমীক্ষা হয়। মূলত জোর দেওয়া হয় ষ্টেশনের পরিচ্ছন্নতা ও পরিষেবার ওপর। প্রধানমন্ত্রীর স্বচ্ছভারত মিশনে সাড়া দিয়ে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নেয় রেল কর্তৃপক্ষ। ২৪ ঘন্টা কড়া নজরদারি, যাত্রীদের সচেতন ও সর্ব্বোপরি নিয়ম না মানার দায়ে জরিমানা পর্যন্ত করা হয়। আর তার ফলস্বরুপ গত ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে ৪৪ নম্বরে থাকা দুর্গাপুর ক্যাটাগরির নিরিখে চতুর্থ স্থানে। পরবর্তীকালে গত ২০১৭ সালে স্বচ্ছতায় মুখ উজ্জ্বল করে দুর্গাপুর ষ্টেশন। একবছর ধরে সমীক্ষার পর নম্বর ভিত্তিক তালিকা তুলে ধরে স্বচ্ছ রেল ওয়েব পোর্টালে। তাতে ৪০৭ টি ষ্টেশনকে র‍্যাঙ্কিং করা হয়। তার মধ্যে ৭৫ টি ষ্টেশন ‘এ-ওয়ান’ ও ৩৩২ টি ষ্টেশন ‘এ’ ক্যাটাগরিতে রয়েছে। এবং এই ‘এ’ ক্যাটাগরিতে চতুর্থ স্থানে রয়েছে দুর্গাপুর। এছাড়াও সার্বিক ক্ষেত্রে দেশের শীর্ষস্থানে ছিল পঞ্জাবের বিয়াস, দ্বিতীয় অন্ধ্র প্রদেশের বিশাখাপত্তনম,তৃতীয় তামিলনাড়ুর খাম্মাম, চতুর্থস্থানে মধ্য প্রদেশের আহমেদনগর ও পঞ্চম স্থানে দুর্গাপুর। এছাড়াও তালিকায় রাজ্যের আরও ১০টি ষ্টেশন জায়গা করে নিয়েছিল। এছাড়াও গোটা দেশের নিরিখে মডেল স্টেশনের স্বীকৃতি এর আগে একাধিকবার পেয়েছে দুর্গাপুর। প্রথম দশের মধ্যে একবার দ্বিতীয় ও একবার পঞ্চম স্থান দখল করে। পুর্ব রেলওয়ের মধ্যে স্বচ্ছতার সেরা শিরোপা পেয়েছে দুর্গাপুর। ইতিমধ্যে স্টেশনে দুটি প্ল্যাটফর্মে লিফট পরিষেবা ও চলমান সিঁড়ি চালু হয়েছে। সম্প্রতি রেলমন্ত্রীর কাছে পানাগড় ও দুর্গাপুরে বন্দেভারত ট্রেনে স্টপেজের আবেদন জানান সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওহালিয়া ও সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। রেল সুত্রে জানা গেছে, ২৪ সেপ্টেম্বর রবিবার দেশে পাটনা-হাওড়া সহ নয়টি বন্দেভারত ট্রেনের পতাকা উন্মোচন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর ওই পাটনা-হাওড়া বন্দেভারত দুর্গাপুরে সন্ধ্যা ৬ টা ৫৫ মিনিটে পৌঁছাবে সেখানে রেলের পক্ষ থেকে অনুষ্ঠান কর্মসূচী রয়েছে। তারপর পানাগড়ে থামবে। উভয় রাজ্যের মোট দশটি  জেলা (পাটনা, লক্ষীসরাই, জামুই, দেওঘর, কলকাতা, জামতারা, পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব বর্ধমান, হুগলি, হাওড়া) এই ট্রেনের আওতায় থাকবে। পাটনা-হাওড়া বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ট্রেনটি পাটনা থেকে হাওড়া পর্যন্ত ৫৩২ কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রম করবে। ট্রেনটির গড় গতি হবে ঘন্টায় ৮২ কিলোমিটার। অত্যাধুনিক বন্দে ভারত এক্সপ্রেস দুই রাজ্যের পর্যটন এবং বাণিজ্যিক ব্যবসাকেও উৎসাহিত করবে বলে মনে করছে রেল।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments