Thursday, April 25, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গবাজার হাটে, বাসে, ধামসা মাদলের সঙ্গে নাচে রবিবাসরীয় প্রচারে সব দলের প্রার্থীরা

বাজার হাটে, বাসে, ধামসা মাদলের সঙ্গে নাচে রবিবাসরীয় প্রচারে সব দলের প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিনিধি, বাঁকুড়া:নির্বাচন ঘোষণার অনেক আগে থেকেই প্রচার নেমেছে সব কটি দল। কিন্তু রবিবার বাড়তি উদ্যোগ দেখা যায় রাজনৈতিক দলগুলোর প্রচারে কারণ রবিবার অনেকই থাকেন বাড়িতে। ছুটির আমেজ মানুষজন থাকে বাজারে হাটে ভিড় করেন। কেউ লাল পলাশের সাথে ধামসা মাদলে আদিবাসীদের সঙ্গে সামিল হলেন কেউ আবার প্রচারের জন্য রবিবার বেছে নিলেন হাট বাজার। কেউ আবার টার্গেট করলেন বাস যাত্রী সহ বাস কর্মীদের। প্রার্থীকে পলাশ ফুলের মালা পরিয়ে রাস্তায় ফুল ছড়িয়ে ধামসা মাদল আর আদিবাসী নৃত্যের তালে তালে তৃণমূল প্রার্থীর প্রচারে সামিল হলেন গ্রামের মানুষ।আদিবাসীদের নিজস্ব রীতিতে প্রার্থীকে পলাশ ফুলের মালা পরিয়ে, রাস্তায় ফুল ছড়িয়ে, ধামসা মাদলের বোল আর আদিবাসী মহিলাদের নাচের তালে স্থানীয় আদিবাসী মানুষেরা সামিল হলেন তৃণমূল প্রার্থীর প্রচারে। রবিবার দুপুরে বাঁকুড়ার ইন্দপুর ব্লকের পলাশবনি গ্রামে প্রচারে যান বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রের শাসক দলের প্রার্থী অরুপ চক্রবর্তী। গ্রামে যেতেই অরুপ চক্রবর্তীর গলায় সদ্য তুলে আনা পলাশ ফুলের মালা পরিয়ে দেন স্থানীয় আদিবাসীরা। এরপর রাস্তায় ফুল ছড়িয়ে ধামসা মাদলের বোলে ও আদিবাসী রমণীদের নাচের ছন্দে তৃণমূলের প্রচারে সামিল হন এলাকার আদিবাসী মানুষেরা। প্রচারে বেরিয়ে পলাশবনি গ্রামের আদিবাসীদের এমন উষ্ণ অভ্যর্থনা পেয়ে কার্যত আপ্লুত অরুপ চক্রবর্তী। অন্যদিকে রবিবার বাসে উঠে সাত সকালে ভোট প্রচার বাঁকুড়ার বিজেপি প্রার্থীর। বাঁকুড়ার গোবিন্দনগর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় প্রচার সারলেন বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সুভাষ সরকার। সাত সকালেই তিনি হাজির হন বাস স্ট্যান্ড এলাকায়। বাসস্ট্যান্ডে থাকা বিভিন্ন লোকজন, বাসযাত্রী, বাস কর্মী সহ সকলকেই বিজেপিকে ভোট দেওয়ার আবেদন জানিয়ে প্রচার সারেন। এর পাশাপাশি বাসে উঠে বাসযাত্রীদের সঙ্গে কথা বলার পাশাপাশি রাম মূর্তি সকলের হাতে তুলে দিয়ে রাম মন্দির যাওয়ার আহ্বান জানান। আর এক দিকে রবিবাসরীয় প্রচারে সাত সকালেই সবজী বাজারে হাজির সিপিএম প্রার্থী, সবজী ব্যবসায়ী থেকে ক্রেতা সকলের কাছেই ভোটভিক্ষা করলেন সিপিএম প্রার্থী নীলাঞ্জন দাশগুপ্ত। রবিবার মানেই সাত সকালেই মধ্যবিত্ত গৃহস্থ থেকে চাকরীজীবী সাধারণ মানুষ থলে হাতে হাজির হন সবজী বাজারে। বাজারে আসা স্থানীয় মানুষের ভিড়ে গিজগিজ করে বাঁকুড়ার ছাতনা ব্লকের অন্যতম সবজী বাজার ঝাঁটিপাহাড়ি স্টেশন বাজার। আর সেই সবজী বাজারেই সাত সকালে দলের নেতা কর্মীদের নিয়ে হাজির হলেন বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রের সিপিআইএম প্রার্থী নীলাঞ্জন দাশগুপ্ত। বাজারে আসা সবজী ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে ক্রেতাদের মাঝে বামেদের পক্ষে ভোটদানের আবেদন জানান তিনি। সিপিআইএম প্রার্থীর দাবী একসময় ঝাঁটিপাহাড়ি এলাকায় কমবেশি ৪০ টি মিল ছিল। চাল মিল, তেল মিল সহ এই ৪০ টি মিলে কমবেশি আড়াই হাজার শ্রমিক কাজ করত। আজ সে জায়গায় মাত্র একটি মিল টিমটিম করে চলছে। কর্মহীন বহু মানুষ। এলাকার রাস্তাঘাট, পানীয় জল সরবরাহের অবস্থাও তথৈবচ। এলাকার বিধায়ক থেকে সাংসদ কেউ সেদিকে নজর দেননি। এদিন মানুষের কাছে সেই ইস্যুগুলিকে তুলে ধরেই ভোট প্রচার করেন তিনি।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments