Thursday, May 23, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গপেটে ব্যাথা নিয়ে ভর্তি তরুণী হাসপাতাল থেকে বেরোলো মা হয়ে

পেটে ব্যাথা নিয়ে ভর্তি তরুণী হাসপাতাল থেকে বেরোলো মা হয়ে

নিজস্ব সংবাদদাতা,বর্ধমানঃ  কালনা থানার দত্তদ্বারিয়াটন এলাকার এক মহিলা পেটে অসহ্য যন্ত্রণা নিয়ে কালনা হসপিটালে ভর্তি হয়ে আশ্চর্যজনকভাবে পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন। শনিবার বিকেলে চিকিৎসকরাও জানালেন এমন ঘটনা বিরল। একই সাথে মহকুমা হসপিটালে এমন কেস হয় না বললেই চলে। জানা গিয়েছে দত্তদ্বারিয়াটন এলাকার বাসিন্দা বছর কুড়ি বয়সী প্রিয়া ক্ষেত্রপাল গতকাল শুক্রবার রাতে অসহ্য পেটে যন্ত্রণা নিয়ে কালনা মহকুমা হসপিটালে ভর্তি হওয়ার জন্য আসে। পরবর্তী সময় প্রেগনেন্সির টেস্টের কিটোও তার নেগেটিভ রেজাল্ট আসে। গত ৯ মাস ধরে যে তিনি অন্তঃসত্ত্বা ওই মহিলা বিষয়টি জানতে না। তার কোন শারীরিক পরিবর্তন দেখা যায়নি। একই সাথে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার জন্য যে সমস্ত সিমটমস প্রয়োজন কোন কিছুই ছিল না ওই মহিলার মধ্যে। গতকাল পেটে যন্ত্রণা হওয়ার সময় তিনি গ্যাস অম্বলের জন্য এমন ঘটনা ঘটেছে বলে হসপিটালে আসে। কালনা মহকুমা হসপিটাল এরই স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পীযুষ কান্তি দাস বিষয়টি বুঝতে পারেন তিনি কোনরকম ভাবে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন। সময় নষ্ট না করে সাথে সাথেই ওই রাতে ওটি করার সিদ্ধান্ত নেন। তখনো ওই গৃহবধূ এবং তার স্বামী কোনভাবেই বুঝে উঠতে পারছেন না তার স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা। যদি ওই গৃহবধুর আগে একটি দেড় বছরের পুত্র সন্তানে রয়েছে। এরপরে গতকাল গভীর রাতে ওই গৃহবধূ একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেয়। এ বিষয়ে দিন শনিবার বিকেলে স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পীযুষ কান্তি দাস তিনি বলেন, এটিকে আমরা  ক্রিপ্টো প্রেগনেন্সি বলি। এক্ষেত্রে প্রেগনেন্সির কোনোরকম সিমটম থাকে না রোগীর মধ্যে। তবে সেটা কুড়ি সপ্তাহ পর্যন্ত হওয়া সম্ভব। এই ক্ষেত্রে বিষয়টি খুবই বিরল। তবে মা ও বাচ্চা দুজনেই সুস্থ রয়েছে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments