Saturday, July 20, 2024
Google search engine
Homeদক্ষিণবঙ্গপ্রধান,উপপ্রধানের স্বেচ্ছাচারের অভিযোগে খান্দরা পঞ্চায়েতে ফের তালা ঝোলালো বিক্ষুব্ধ সদস্যরা

প্রধান,উপপ্রধানের স্বেচ্ছাচারের অভিযোগে খান্দরা পঞ্চায়েতে ফের তালা ঝোলালো বিক্ষুব্ধ সদস্যরা

নিজস্ব সংবাদদাতা,অন্ডালঃ প্রধান উপপ্রধানের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারের অভিযোগে তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েত কার্যালয়ে তালা ঝুলালো বিক্ষুব্ধ সদস্যরা। খান্দরা গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘটনা। বিক্ষুব্ধদের পাশে দাঁড়িয়ে দলের অঞ্চল সভাপতি বলেন, বিষয়টি দলের উচ্চ নেতৃত্বকে জানানো হয়েছে। দলের প্রধান,উপপ্রধান দু’জনে সিপিএমের সাথে মিলে পঞ্চায়েতে স্বেচ্ছাচার চালাচ্ছে এই অভিযোগে সোমবার খান্দরা পঞ্চায়েত কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ দেখালো তৃণমূলের বিক্ষুব্ধ পঞ্চায়েত সদস্যরা। উল্লেখ্য খান্দরা পঞ্চায়েতে ২৩টি সংসদের মধ্যে ২০ জন তৃণমূলের ও ৩ জন রয়েছেন সিপিএম সদস্য। গত বুধবার সুমিতা বাউরী ও আশীষ নন্দী নামে দু’জন সদস্য পঞ্চায়েত কার্যালয়ের সদর দরজায় তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন। সোমবার ঘটল একই ঘটনা। ফের তালা পড়লো পঞ্চায়েত কার্যালয়ে। তবে দু’জন নয়,এবার বিক্ষোভের সামিল হলো ১০ জন তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্য। এদিন বেলা ১২ টা নাগাদ বিক্ষুব্ধরা পঞ্চায়েত অফিসে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। ঘন্টাখানেক পর তালা খুলে দিলেও বিক্ষোভ চালিয়ে যান তারা। বিক্ষোভকারীদের পক্ষে অসীম বারুই,সুমিতা বাউরীরা জানান, প্রধান অপর্না বাদ্যকর ও উপপ্রধান গণেশ বাদ্যকর দু’জন মিলে পঞ্চায়েতে স্বেচ্ছাচার চালাচ্ছেন। সিপিএম পঞ্চায়েত সদস্যদের নিয়ে বৈঠক করা হলেও সেই বৈঠকে তৃণমূলের অন্য সদস্যদের ডাকা হয় না। অধিকাংশ সদস্যদের এলাকায় ট্যাঙ্কারের জল পৌঁছাচ্ছে না। উন্নয়নের কাজ হচ্ছে না,বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা,পয়সার হিসাব নেই বলে অভিযোগ করেন তারা। প্রধান,উপপ্রধানের ইস্তফার দাবিও জানান তারা। প্রধান অপর্না বাদ্যকরকে ফোন করা হলে তিনি ফোনে সাড়া দেননি। উপপ্রধান গণেশ বাদ্যকর বলেন, অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। ব্যক্তি স্বার্থে বারবার পঞ্চায়েতে তালা দিয়ে দলের বদনাম করছে কয়েকজন সদস্য। বিক্ষুব্ধ সদস্যদের পাশে দাঁড়ান দলের অঞ্চল সভাপতি সমীর ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, সিপিআইএম এর কথাতে পঞ্চায়েত চালাচ্ছেন প্রধান,উপপ্রধান। গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না দলের সদস্যদের। উন্নয়নের কাজ থমকে থাকায় দলের ভাবমূর্তির ক্ষতি হচ্ছে। তিনি বলেন,বিষয়টি দলের ঊর্ধ্বতন নেতাদের জানানো হয়েছে। তৃণমূলের ব্লক সভাপতি কালোবরন মন্ডল বলেন প্রধান,উপপ্রধান সহ সব পক্ষের সাথে আলোচনা করে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিষয়টি দলের জেলা সভাপতিকেও জানানো হয়েছে বলে জানান কালোবরণবাবু।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments